ব্রেকিং:
মাওলানা ত্বহার হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইভার অন; বন্ধ মোবাইল ফোন কে এই মাওলানা ত্বহার ২য় স্ত্রী সাবিকুন নাহার? আওয়ামীলীগের ধর্মীয় উন্নয়নকে ব্যাহত করতে ত্বহা ষড়যন্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা ফেনীতে করোনার নমুনা সংগ্রহ করবে স্বাস্থ্যকর্মীরা ফেনীর বিভিন্নস্থানে মোবাইল কোটের অভিযান : ১৪ জনের দন্ড ফেনীতে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌছে দিয়েছে ছাত্রলীগ করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের ফেনীর ৭ সরকারি কলেজের একদিনের বেতন ত্রাণ তহবিলে ফেনী ধলিয়ায় গ্রাম পুলিশের বাড়িতে হামলা, আহত ২ মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? ফেনীতে বাড়তি দামে পণ্য বেচায় ৭ দোকানের জরিমানা দেশে করোনায় আক্রান্ত প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার, একদিনে মৃত্যু ৫ যুক্তরাষ্ট্রে করোনা জয় করলেন ১ লাখেরও বেশি মানুষ ফেনীতে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ফেনী শহরে ইমাম-মুয়াজ্জিনদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার প্রদান ফেনীতে ডাক্তারদের সুরক্ষা ও রোগীদের চিকিৎসা সামগ্রী দিয়েছে বিএমএ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো
  • বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৫ ১৪৩১

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

করোনায় তিতুমীর কলেজে হচ্ছে আইসোলেশন সেন্টার

ফেনীর হালচাল

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০২০  

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে সরকারি তিতুমীর কলেজে ‘আইসোলেশন সেন্টার’ তৈরি করা হচ্ছে৷ দেশের একটি বেসরকারি কোম্পানির সহযোগিতায় গত দুইদিন ধরে আইসোলেশন প্রস্তুতের কাজ চলছে।


বৃহস্পতিবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পুরো মাঠ জুড়ে বানানো হচ্ছে করোনা আক্রান্তদের জন্য আইশোলেশন সেন্টার। মাঠের মাঝে হার্ডবোর্ড দিয়ে দুইটি বুথ তৈরি করা হয়েছে। মাঠের উত্তর প্রান্তে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সচেতনতামূলক ব্যানার টাঙানো হয়েছে।


পাশাপাশি কলেজের নতুন একাডেমিক ভবনের নিচতলা ও দোতলা খালি করে পরিস্কার করা হয়েছে। এসব কাজ করছেন তিতুমীর কলেজের কর্মচারী ও আইসোলেশনের দায়িত্বে থাকা ওভাল গ্রুপের লোকজন। মাঠে এখনো অনেক কাঠ ও তাবু তৈরির সরঞ্জামাদি পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

নতুন ভবনের উপরে গিয়ে দেখা যায়, একটি বিশাল কক্ষ খালি করে পরিস্কার করে রাখা হয়েছে। পাশে আরেকটি কক্ষে ১৫-২০ জন নারী একসঙ্গে বসে আছেন। ওই কক্ষে আইসোলেশনের সরঞ্জামের সঙ্গে প্রস্তুত করা হয়েছে কোম্পানির স্টাফদের থাকার চৌকি।

সেখানে উপস্থিত হুমায়ুন কবির হিমু নামে এক সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমরা সারাদেশে ৩০০টি আইসোলেশন সেন্টার প্রস্তুতের কাজ করছি। তিতুমীর কলেজে দুইটি বুথ ও ১টি স্কুল ঘর রাখা হয়েছে। নিচতলায় স্টাফরা থাকবেন আর দোতলা আইসোলেশনের জন্য ব্যবহার করা হবে।


তিনি আরো বলেন, এই আইসোলেশন সেন্টার তৈরির কাজ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তত্বাবধানে করা হচ্ছে। সেনা সদস্যরা দেখভাল করছেন।

এদিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাঈদুল ইসলাম প্রধান বলেন, তিতুমীর কলেজে আইসোলেশন সেন্টার হচ্ছে কি না, আমার জানা নেই। তবে ২০০ শয্যার আইসোলেশন প্রস্তুত করা হচ্ছে বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির নবরাত্রি হলে।

এ বিষয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

সরকারি তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আশরাফ হোসেন বলেন, আমি বাসায় আছি। যতটুকু জানি, কলেজে ডাক্তাররা কাজ করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে এটি তদারকি করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে বুধবার আমাকে ফোনে জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে আমার কাছে চিঠি দিয়ে তিতুমীর কলেজ ক্যাম্পাস ব্যাবহারের কথা জানানো হয়েছে।

ফেনীর হালচাল
ফেনীর হালচাল