ব্রেকিং:
মাওলানা ত্বহার হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইভার অন; বন্ধ মোবাইল ফোন কে এই মাওলানা ত্বহার ২য় স্ত্রী সাবিকুন নাহার? আওয়ামীলীগের ধর্মীয় উন্নয়নকে ব্যাহত করতে ত্বহা ষড়যন্ত্র স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা ফেনীতে করোনার নমুনা সংগ্রহ করবে স্বাস্থ্যকর্মীরা ফেনীর বিভিন্নস্থানে মোবাইল কোটের অভিযান : ১৪ জনের দন্ড ফেনীতে কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌছে দিয়েছে ছাত্রলীগ করোনার তাণ্ডবে প্রাণ গেল ২ লাখ ১১ হাজার মানুষের ফেনীর ৭ সরকারি কলেজের একদিনের বেতন ত্রাণ তহবিলে ফেনী ধলিয়ায় গ্রাম পুলিশের বাড়িতে হামলা, আহত ২ মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট পরিস্থিতি ঠিক না হলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ আপনিকি করোনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের কিট ব্যবহারের বিপক্ষে? ফেনীতে বাড়তি দামে পণ্য বেচায় ৭ দোকানের জরিমানা দেশে করোনায় আক্রান্ত প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার, একদিনে মৃত্যু ৫ যুক্তরাষ্ট্রে করোনা জয় করলেন ১ লাখেরও বেশি মানুষ ফেনীতে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার ফেনী শহরে ইমাম-মুয়াজ্জিনদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার প্রদান ফেনীতে ডাক্তারদের সুরক্ষা ও রোগীদের চিকিৎসা সামগ্রী দিয়েছে বিএমএ করোনায় মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯২ হাজার ছাড়ালো
  • মঙ্গলবার   ২৯ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

‘ভাইরাল হওয়া ভিডিও ছাত্রলীগের নয়, বিএনপি নেতার ছেলের’

ফেনীর হালচাল

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের মধ্যেই ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দিয়ে ফেসবুক লাইভে আসা একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে তাকে জ্বলন্ত সিগারেট হাতে ঘটনার বিবরণ দিতে দেখা যায়। সূত্র বলছে, ভিডিওটিতে যে ছেলেটিকে দেখা গিয়েছে সে মালয়েশিয়া বিএনপির সহ-সভাপতি মরহুম সেলিম ভূঁইয়ার ছেলে তাহসান মাহমুদ। ছাত্রলীগ সম্পর্কে জনগণের মনে ভ্রান্ত ধারনা তৈরি করার জন্যই পরিকল্পিতভাবে তাহসান দেশের বাহির থেকে ভিডিওটি তৈরি করে। তিনি বর্তমানে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অবস্থান করছেন।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশ না করার শর্তে মালয়েশিয়া বিএনপির এক বহিষ্কৃত নেতা বলেন, মালয়েশিয়া বিএনপির সাবেক নেতা মরহুম সেলিম ভূঁইয়ার ছেলে তাহসান মাহমুদ। সে বর্তমানে কুয়ালালামপুরে একটি কনস্ট্রাকশন ফার্মে কাজ করে। দেশে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিল তাহসান। সম্প্রতি তাহসানের ভাইরাল ভিডিওটি মালয়েশিয়ায় বসেই তৈরি করেছে, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। মূলত ছাত্রলীগকে হেয় করার জন্যই তাহসান ভিডিওটি তৈরি করেছে বলেই আমার মনে হচ্ছে।

ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে তাহসানকে বলতে শোনা যায়, ‘বাসায় আসতে আসতেই দেখি সব তোলপাড় হয়ে গেছে। সিগারেট আনতে বাইরে গেছিলাম। তারপর দুএকটা মার খাইছি।’

ভিডিওতে সে বলে, ‘আমাদের পরিচয় কি আমরা দেব না। আমরা কি? আমরা কি কৃষক নাকি? আমরা ছাত্রলীগ। পাগলের মতো আপনারা। দুএকটা চটকানো খাইলে কি হয়ে যাইগা? আজকে আমাদের গোলাম রাব্বানী বাজান থাকলে এমন দিন দেখতে হইতো না।’

তিনি আরো বলেন, ‘ছাত্রলীগ কি শুধু মাইর খায়? মাইর দেয় না? ইতিহাস নাই? সামনে দেহামুনে। ওয়েট?’

এ প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, তাহসান মাহমুদ নামে একটি ছেলের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। অনেকে বলছেন ছেলেটি ছাত্রদল কর্মী। কিন্তু আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না। তবে তার বাবা মরহুম সেলিম ভূঁইয়া বিএনপি করতো এবং আমার খুব ভালো বন্ধু ছিলো।

ফেনীর হালচাল
ফেনীর হালচাল